ব্লগিং করতে হলে কী কী শিখতে হবে?

বর্তমানে ঘরে বসে অনলাইনে আয় করার জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হচ্ছে ব্লগিং করা। অনেকেই এই ব্লগিং নামটি শুনে এই কাজটি করতে চায়। কিন্তু তারা জানে না যে ব্লগিং করতে হলে কী কী শিখতে হবে।

সেজন্যেই মূলত এই আর্টিকেলে আমি ব্লগিং করতে হলে কি কি শিখতে হবে A to Z এ বিষয়ে নিচে আলোচনা করেছি।

তাই আর্টিকেলটি মনোযোগ পড়বেন।

 

ব্লগিং কী/ব্লগিং কাকে বলে?

 

অনলাইনে যে কোন একটি বিষয় নিয়ে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখানে নিয়মিত আর্টিকেল লিখে বিভিন্ন উপায়ে সেখান থেকে আয় করাকেই সহজ ভাষায় বলা হয় ব্লগিং।

উদাহরণস্বরূপ: আপনি এখন এই আর্টিকেলটি পড়তেছেন www.trickbdblog.com এই ওয়েবসাইটে। এটি আমার তৈরি করা ওয়েবসাইট আর ’ব্লগিং করতে হলে কী কী শিখতে হবে?’ বিষয়ে যে আর্টিকেলটি এখন পড়তেছেন এটি আমার লেখা আর্টিকেল। আর এই ওয়েবসাইট থেকে আয় করার বিভিন্ন উপায় রয়েছে। যেমন: বিজ্ঞাপন দেখানোর মাধ্যমে, স্পন্সরড এর মাধ্যমে ইত্যাদি। আর এই পুরো প্রক্রিয়াটি ওয়েবসাইট তৈরি করা, আর্টিকেল লেখা, আয় করা এই সবকে একত্রে বলা হয় ব্লগিং।

 

ব্লগিং করতে হলে কী কী শিখতে হবে?

 

ব্লগিং করার জন্য আপনাকে বেশ কিছু বিষয় সম্পর্কে জানতে বা শিখতে হবে। নিচে সেসব বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে।

ব্লগিং করতে হলে যা যা শিখতে হবে:

  • কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়?
  • কোন প্লাটফর্মে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন?
  • কিভাবে ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে হয়?
  • কিভাবে আর্টিকেল লিখতে হয়?
  • কিভাবে গুগলে ওয়েবসাইট এড করতে হয়?
  • ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আয় করতে হয়?

 

কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়?

 

ব্লগিং করতে হলে আপনার অবশ্যই একটি ওয়েবসাইট থাকতে হবে। যেখানে আপনি লেখালেখি করবেন। যেমন: আমার ওয়েবসাইটের নাম হচ্ছে www.trickbdblog.com। ব্লগিং করার জন্য আপনারও এমন একটি ওয়েবসাইট থাকতে হবে।

সেজন্য ব্লগিং করার জন্য প্রথমে কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয় এ বিষয়ে জানতে হবে। তবে আপনার কাছে টাকা থাকলে অন্য কাউকে দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পাড়বেন।

 

আরও পড়ুন: ব্লগিংয়ে সফল হওয়ার ১০টি কার্যকরী উপায়

 

কোন প্লাটফর্মে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন?

 

ওয়েবসাইট তৈরি করার অনেক প্লাটফর্ম রয়েছে যেমন: ব্লাগার (Blogger), ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) । প্রত্যেকটি প্লাটফর্মের আলাদা আলাদা বিশেষত্ব রয়েছে। গুগল বা ইউটিউবে একটু সার্চ করলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

এ বিষয়ে জানার পর ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য যে কোন একটি প্লার্টফর্ম নির্বাচন করবেন।

 

কিভাবে ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে হয়?

 

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার পরবর্তী ধাপ হচ্ছে সেই ওয়েবসাইটটিকে ডিজাইন করা। একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা হচ্ছে ঘরের জন্য আসবাবপত্র কেনার মতো। সেইসব আসবাবপত্র না সাজালে যেমন অগোছালো দেখা যাবে ঠিক তেমনি ওয়েবসাইট তৈরি করে সেটি না ডিজাইন করলে অগোছালো দেখা যাবে।

সেজন্য ওয়েবসাইটের টপিকের সাথে সামঞ্জস্য রেখে একটি সুন্দর থিম নির্বাচন করতে হবে। যাতে ভিজিটররা আর্টিকেল পড়ার সময় স্বাচ্ছন্দ বোধ করে। তাই ব্লগিং করতে হলে কিভাবে ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে হয় এ বিষয়েও জানতে বা শিখতে হবে।

 

কিভাবে আর্টিকেল লিখতে হয়?

 

ওয়েবসাইট তৈরি করা, ডিজাইন করার পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে ধাপটি রয়েছে সেটি হচ্ছে আর্টিকেল লেখা। একটি ওয়েবসাইটের প্রাণ হচ্ছে সেই ওয়েবসাইটের আর্টিকেল।

ভিজিটর কিন্তু আপনার ওয়েবসাইট দেখতে আসে না। তারা আসে আপনার ওয়েবসাইটের আর্টিকেলগুলো পড়ার জন্য। আপনি কন্টেন্ট রাইটার (Content Writer) হায়ার করে আর্টিকেল লিখে নিতে পারবেন। তবে তা অনেক ব্যয়বহূল।

সেজন্য ব্লগিং করতে হলে আপনাকে কন্টেন্ট রাইটিং বা আর্টিকেল রাইটিং শিখতে হবে।

 

কিভাবে গুগলে ওয়েবসাইট এড করতে হয়?

 

ওয়েবসাইটে ট্রাফিক বা ভিজিটর আনার বিভিন্ন উপায় থাকলেও সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি উপায় হচ্ছে গুগল থেকে ভিজিটর আনা।

গুগলে ওয়েবসাইট এড করার জন্য আপনার  Google Search Console যেতে হবে। সেখানে ওয়েবসাইট এড করার অপশন পাবেন। সেখানে ওয়েবসাইট এড করলেই আপনার ওয়েবসাইট ও ওয়েবসাইটের আর্টিকেল গুগলে ইনডেক্স হবে। এবং গুগল থেকে আপনার ওয়েবসাইটে অর্গানিক ট্রাফিক (গুগল থেকে ওয়েবসাইটে যে ট্রাফিক বা ভিজিটর যায় তাকেই অর্গানিক ট্রাফিক বলে) যাওয়া শুরু করবে।

 

ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আয় করতে হয়?

 

সব কিছু হলো কিন্তু এখন ব্লগিং করে আয় করব কিভাবে এ বিষয়ে না জানলে কোন লাভ হবে না এক জন ব্লগারের (যিনি ব্লগিং করে তাকে ব্লগার বলা হয়)।

কারণ, সময়ের মূল্য রয়েছে। আমরা যে কাজে সময় ও শ্রম দিচ্ছি সেখান থেকে অবশ্যই আয় হতে হবে।

ওয়েবসাইট থেকে আয় করার অনেক উপায় রয়েছে। যেমন: বিজ্ঞাপন দেখানো, স্পন্সরড এর মাধ্যমে, এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে ইত্যাদি আরও বিভিন্ন উপায়ে একটি ওয়েবসাইটে থেকে ইনকাম বা আয় করা যায়।

ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেখানোর জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হচ্ছে গুগল এডসেন্স (Google Adsense)। এখানে ওয়েবসাইট এপ্রুভ করালে আপনার ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেখানোর মাধ্যমে আয় করতে পারবেন।

সেজন্য ব্লগিং করতে হলে ওয়েবসাইট থেকে আয় করার বিভিন্ন উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে হবে।

 

পরিশেষে, এই আর্টিকেলে ব্লগিং করতে হলে কী কী শিখতে হবে সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো। মনে রাখবেন, এখানে শুধু  ব্লগিং করতে হলে কী কী শিখতে হবে সে সম্পর্কে বলা হলো। আপনাকে এখন এই সব কাজ শিখে তারপর ব্লগিং করতে হবে। আপনি ব্লগিং করে রাতারাতি সফল না হলেও ধৈর্য করে কাজ শিখে শিখে এ কাজ করলে একদিন আপনি একজন সফল ব্লগার হবেন।

এই আর্টিকেলে কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট বক্মের মাধ্যমে জানতে পারেন। আমি যত দ্রুত সম্ভব আপনার কমেন্টের রিপ্লাই দেওয়ার চেষ্টা করব।

Spread the love

হ্যালো "ট্রিকবিডিব্লগ" বাসী আমি ওসমান আলী। দীর্ঘদিন থেকে অনলাইনে লেখালেখির পেশায় যুক্ত আছি। Trick BD Blog আমার নিজের হাতে তৈরি করা একটি ওয়েবসাইট। এখানে আমি প্রতিনিয়ত ব্লগিং, ইউটিউবিং ও প্রযুক্তি সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ টিপস এন্ড ট্রিক্স রিলেটেড আর্টিকেল প্রকাশ করে থাকি।

Leave a Comment